বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

বাসে বসে বমি? কি করা যায়!

বাসে বসে বমি? কি করা যায়!

বাস বা গাড়িতে চেপে লম্বা সফর করলেই বমি বমি ভাব। অনেকেরই এই সমস্যা রয়েছে।

এটা কিন্তু কোনও রোগ নয়। এটা আসলে মোশন সিকনেস। অনেকে বাস বা গাড়িতে চেপে কিছুক্ষণ সফর করলেই বমি করে ফেলেন।

কারও আবার লম্বা সফরের পরও দু-তিনদিন বমি বমি ভাব, মাথা ঘোরার মতো সমস্যা দেখা দেয়।

অনেকে তো বমির ভয়ে লম্বা সফরে যেতেই রাজি হন না। তবে সমস্যা যখন আছে, সমাধানও রয়েছে।

কয়েকটি ব্যাপার একটু মেনে চললেই সফর করার সময় বমি ভাবের সমস্যা কাটাতে পারবেন।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, বাসে বা গাড়িতে লম্বা সফরের সময় বমি পায় কেন! আসলে মোশন সিকনেসের সিম্পটম্পের জেরে অনেকেই রাস্তাঘাটে সমস্যায় পড়েন। বিরক্তিকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। আসলে লম্বা সফরের সময় আমাদের মস্তিষ্কের ভিতর কান, চোখ, ত্বক থেকে আলাদা আলাদা সিগনাল যায়। ফলে সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেম দ্বন্দ্বে পড়ে যায়। তবে আগে থেকে কিছুটা সাবধানতা অবলম্বন করলে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা যেতে পারে।

দেখে নেওয়া যাক, সফরের সময় বমি ভাব কাটাতে কী কী করা যেতে পারে- পিছনের সিটে বসবেন না। বাসের পিছনের সিটে গতির অনুভূতি বেশি হয়। গাড়িতেও সামনের সিটে বসতে পারলে ভাল। সফরের সময় বমি বমি ভাব হলে বই পড়বেন না। না হলে মস্তিষ্কে ভুল বার্তা যাবে। সমস্য়া বাড়তে পারে।বমি পেলে বাস বা গাড়ির জানালা খুলে ঠাণ্ডা বাতাসের স্পর্শ নিতে পারেন। তাতে একটু আরাম অনুভব করতে পারেন। খালি পেটে কখনওই সফর করবেন না। খালি পেটে থাকলে মোশন সিকনেস বেশি হতে পারে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana