সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৬:০৫ অপরাহ্ন

ঝালকাঠিতে সাবেক মেয়র আফজালের প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণার দাবিতে নৌকা প্রার্থীর আপিল

ঝালকাঠিতে সাবেক মেয়র আফজালের প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণার দাবিতে নৌকা প্রার্থীর আপিল

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

হলফনামামায় মিথ্যা ও ভুল তথ্য দেয়ার পরও ঝালকাঠি পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী আফজাল হোসেনের প্রার্থীতা রিটার্নিং অফিসার বৈধ ঘোষণা করার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের কাছে আপিল করেছেন প্রতিদ্ব›িদ্ব প্রার্থী বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব মো. লিয়াকত আলী তালুকদার ।

রবিবার লিয়াকত আলী তালুকদারের পক্ষে আপিল দায়ের করেন তাঁর আইনজীবী আব্দুল মান্নান রসুল ও আ.স.ম মোস্তাফিজুর রহমান মনু ।

দায়েরকৃত আপিল সূত্রে জানা যায়, ঝালকাঠি পৌরসভার মেয়র পদে নির্বাচন করার জন্য গত ১৭ মার্চ রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আরিফুল ইসলামের কাছে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব মো. লিয়াকত আলী তালুকদার । পরেরদিন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন সাবেক মেয়র গত নির্বাচনের সময় আওয়ামী লীগ থেকে বহিস্কৃত আফজাল হোসেন রানা। গত ১৯ মার্চ যাচাই বাছাইয়ের দিন আফজাল হোসেন রানার দাখিলকৃত হলফনামায় অনেক ভুল এবং মিথ্যা তথ্য রয়েছে লিখিতভাবে দাবি করে তার মনেয়নপত্র বাতিলের দাবি জানান লিয়াকত আলী তালুকদার ।

হলফনামা এবং আয়কর রির্টান পর্যবেক্ষনে দেখা যায় আফজাল হোসেন রানার দাখিলকৃত নির্বাচনী হলফনামায় অস্থাবর সম্পদের পরিমানে নগদ টাকা দেখানো হয়েছে ২৫ হাজার এবং ব্যাংকে জমাকৃত অর্থ দেখানো হয়েছে পাঁচ লাখ টাকা । অথচ আয়কর রির্টানে গত ৩০ জুন ২০২০ পর্যন্ত নগদ অর্থের পরিমান দেখানো হয়েছে ৪৫ লাখ ৪৬ হাজার চারশত সাতষট্রি টাকা । হলফনামায় অস্থাবর সম্পদের বিবরণে নিজের দুই ভরি স্বর্ন, স্ত্রীর ১৩ ভরি স্বর্ন এবং কন্যার নামে ২০ ভরি স্বর্ন দেখানো হয়েছে । অপরদিকে আয়কর রির্টানে নিজের এবং ¯ত্রীর নামে ৩৫ ভরি স্বর্ন দেখানো হয়েছে । হলফনামায় স্থাবর সম্পদের বিবরণে আফজাল হোসেনের নামে ১.৩৬৪৬ একর এবং স্ত্রীর নামে ০.০৩৫৭ একর জমি দেখানো হয়েছে ।

কিন্তু আয়কর রির্টানে আফজাল হোসেনের নামে জমির পরিমান দেখানো হয়েছে ১৭২.৫০ একর । এছাড়া হলফনামার ১৪ পৃষ্ঠায় হলফকারীর স্বাক্ষরের নিচে কোন তারিখ ছিল না । মেয়র প্রার্থী লিয়াকত আলী তালুকদার অভিযোগ করেন, এসব বিষয় রির্টানিং কর্মকর্তা আরিফুল ইসলামের কাছে প্রমানসহ উপস্থাপন করা হলেও তিনি বায়েস্ট হয়ে আফজাল হোসেনের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করেন । তাই আমি আপিল কর্তপক্ষ হিসেবে জেলা প্রশাসকের কাছে আপিল করেছি । আশা করছি তিনি আমার আপিল গ্রহণ করে আফজাল হোসেনের প্রার্থীতা অবৈধ ঘোষণা করবেন ।

লিয়াকত আলী তালুকদারের আইনজীবী আ.স.ম মোস্তাফিজুর রহমান মনু বলেন, ঝালকাঠি পৌরসভার নির্বাচনে রির্টানিং অফিসার জনাব আরিফুল ইসলাম, যাচাই বাছাইকালে গত ১৯ মার্চ ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোঃ ফরিদ হোসেনের হলফনামায় ইতিপূর্বে নিস্পতি হওয়া ফৌজদারী মামলার তথ্য না দেয়ায় তার মনোনয়পত্র বাতিল ঘোষণা করেন কিন্তু মেয়র প্রার্থী আফজাল হোসেন মিথ্যা তথ্য দিলেও তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল করেন নি , যা পক্ষপাতমূলক বলে আমরা মনে করি । জেলা প্রশাসক ও পৌরসভা নির্বাচনের আপিল কর্তপক্ষ মো. জোহর আলী বলেন, সোমবার আপিলের শুনানী অনুষ্ঠিত হবে । সকলের বক্তব্য শুনে এবং কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত দেয়া হবে ।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana