শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২৩, ০৮:৩৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
রাজাপুরে নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষকদের সংবর্ধনা ঝালকাঠির বাসন্ডা ব্রিজটি যেন মরণ ফাঁদ! জেকেআরএন ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশনের বার্ষিক মেধাবৃর্ত্তি প্রদান নলছিটিতে সড়ক দূর্ঘটনায় শিশু নিহত ঝালকাঠিতে বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন কাঠালিয়ায় বিতর্কিত পাঠ্যক্রম বাতিল ও প্রনয়ণে জড়িতদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ঝালকাঠিতে বিএনপির গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালিত ঝালকাঠিতে ইয়াস এর ৩য় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে শিক্ষা উপকরণ উপহার স্বপ্নের আলো ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ কাঠালিয়ায় শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
ঝালকাঠিতে দুই প্রতিবন্ধী বৃদ্ধকে দোকান করে দিলেন যুবলীগ নেতা

ঝালকাঠিতে দুই প্রতিবন্ধী বৃদ্ধকে দোকান করে দিলেন যুবলীগ নেতা

দুই বয়স্ক প্রতিবন্ধীর সাহায্যে এগিয়ে এলেন ঝালকাঠির ঠিকাদার ও যুবলীগ নেতা মো. ছবির হোসেন। দুই প্রতিবনন্ধীর চলাচলে হুইল চেয়ার দিয়েই দায় সারেননি, বরং তাদের কর্মসংস্থানের জন্য হুইল চেয়ারে তাদের গড়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ দোকান। আয়ের সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় খুশি প্রতিবন্ধী ওই বর্ষিয়ান ব্যক্তিরা।

জানা যায়, ঝালকাঠি শহরতলীর বাসন্ডা এলাকার ৯০ বছরের বৃদ্ধ আব্দুল হক তালুকদার। ১৪ বছর আগে তিনি পড়ে গিয়ে পায়ে আঘাত পেয়ে প্রতিবন্ধীতা বরণ করেন । চরম দারিদ্রের সংসারে জীবনজাপন দায় হয়ে পড়ে এ বৃদ্ধের। স্থানীয়দের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে এগিয়ে আসেন ঝালকাঠির যুবলীগ নেতা ছবির হোসেন। মঙ্গলবার সকালে একটি হুইল চেয়ার নিয়ে প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের বাড়িতে হাজির হন ঝালকাঠি পৌর যুবলীগের যুগ্ম আহŸায়ক মো. ছবির হোসেন। হুইল চেয়ারেই ওয়ার্কসপ থেকে বিশেষভাবে সংযুক্ত করা হয় ভ্রাম্যমাণ দোকানের কাঠামো। আর তাতে বিভিন্ন ধরণের শিশু খাদ্য সাজিয়ে বৃদ্ধকে বসিয়ে দেওয়া হয় হুইল চেয়ারে।

শহরতলীর কৃষ্ণকাঠি এলাকার আরেক বৃদ্ধ মো. মুজাম্মেল হাওলাদার ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করে সংসার চালাতেন। ৫ বছর আগে অসুস্থ হয়ে একটি পা অকেজো হয়ে যায়। জমিজমা বিক্রি করে চিকিৎসা চালাতে গিয়ে নিশ্ব হয়ে পড়েন। বসতভিটা ছাড়া এখন তাঁর আর কিছুই নেই। অন্যের দয়ায় চলে সংসার। অকেজ পা আর ঠিক হয় না। এই বৃদ্ধকে মঙ্গলবার সকালে হুইল চেয়ারে ভ্রাম্যমাণ দোকান গড়ে দিয়ে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেন যুবলীগ নেতা ছবির হোসেন।

যুবলীগ নেতা ছবির হোসেন বলেন, প্রতিবন্ধীতা নিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি যাতে না করতে হয় সে জন্য অনেক চিন্তা ভাবনা করে এমন উদ্যোগ নিয়েছি। ভিক্ষার ঝুলি নয়, দুই প্রতিবন্ধী বৃদ্ধের কর্মসংস্থান করাই আমার উদেশ্যে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana