বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন

কাঠালিয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে গৃহবধুকে নির্যাতনের করে তালা বদ্ধ রাখার অভিযোগ

কাঠালিয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে গৃহবধুকে নির্যাতনের করে তালা বদ্ধ রাখার অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার পাটিখালঘাটা ইউনিয়নের জোড়খালী গ্রামের ইমরানা আক্তার মাসুদা (২৭) কে স্বামী জামাল হোসাইন বেধরক মারপিট করে ঘরে তালা বদ্ধ করে রাখার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার ৩দিন পর গত মঙ্গলবার মা-বাবা ও পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে কাঠালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স (আমুয়া) ভর্তি করেন। কর্তব্যরত ডাক্তার জানিয়েছেন মাসুদার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

বুধবার দুপুরে ইমরানা আক্তার মাসুদা ও তার স্বজনরা জানান, ইতিপুর্বে স্বামী জামাল হোসাইনকে ১০/১২ লাখ টাকা যৌতুক দেয়া হয়েছে। আরো যৌতুকের আনার জন্য গত শনিবার স্ত্রী মাসুদাকে বেধরক মারপিট করেন। গোপন অঙ্গসহ বিভিন্ন স্থানে আঘাত করেন। পরে তাকে ঘরের একটি কক্ষে তালা বদ্ধ করে রাখেন স্বামী জামাল হোসাইন। খবর পেয়ে সোমবার রাতে মাসুদার পিতা ইউসুফ আলী খান, মাতা রাশেদা বেগমসহ পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন। তিনি আরো জানান, বাড়ী থেকে টাকা আনার জন্য মাসুদাকে প্রায়ই শারীরিক নির্যাতন করত। ইমরানা আক্তার মাসুদা কাঠালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তার মো. মিজানুর রহমানের তত্ত¡াবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের (আমুয়া) আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মিজানুর রহমান জানান, ইমরানা আক্তার মাসুদা নামের এক মহিলা রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে। আমরা তাকে সুস্থ্য করার জন্য চিকিৎসা দিচ্ছি।

অভিযুক্ত শিক্ষক জামাল হোসাইন জানান, এটা আমার বিরুদ্ধে একটি চক্রান্ত এবং মিথ্যা অপবাদ দেওয়া হচ্ছে। আমার স্ত্রীর পরিবারে অন্যান্য বোন এবং ভাইদের নিয়ে এ রকম ঘটনা অনেক আছে। আপনারা ইচ্ছা করলে বামনা ও বরগুনা সাংবাদিকদের সাথে খোঁজ নিতে পারেন। এ বিষয় বরগুনার সাংবাদিক মোশারেফের কাছে জানতে পারেন।

কাঠালিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুফল চন্দ্র গোলদার জানান, এ ব্যাপারে আমি কোন অফিযোগ পাইনি। তবে কেউ অভিযোগ বা মামলা দিলে মামলা নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য যে, গত ১৩ বছর পূর্বে উপজেলার জোড়খালী গ্রামের ইউসুফ আলী খানের মেয়ে ইমরানা আক্তার মাসুদার সাথে পার্শ্ববর্তী বামনা উপজেলার সারোয়ারজান পাইলট উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও খোলপটুয়া গ্রামের জামাল হোসাইনের সাথে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে। স্বামী জামাল নিজ বাড়ী থেকে টাকা আনার জন্য মাসুদাকে প্রায়ই শারীরিক নির্যাতন করত। এরই ধারাবাহিকতায় গত শনিবার তাকে মারাত্মকভাবে শারীরিক নির্যাতন করে ঘরে তালাবদ্ধ করে রাখেন।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana