মঙ্গলবার, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ১২:৩৫ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় পরাজিত মেম্বর প্রার্থীকে পিটিয়ে আহত

কাঠালিয়ায় পরাজিত মেম্বর প্রার্থীকে পিটিয়ে আহত

বার্তা ডেস্ক:

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার শৌলজালিয়া ইউনিনের ৭নং ওয়ার্ডের পরাজিত মেম্বর প্রার্থী ও স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্র্থী তরিকুল ইসলাম বুলবুলের সমর্থক ফয়সাল খানকে(৪৯) পিটিয়ে মাথা ফাটিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান বশির গুরুতর আহত ফয়সাল খানকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে (আমুয়া) নিয়ে ভর্তি করেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার সেন্টারের হাট বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ফয়সাল খান জানান, আমি ইউপি নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস মার্কার মোঃ তরিকুল ইসলাম বুলবুলের সমর্থন করায় আমার খালাতো ভাই নৌকা প্রতিক নিয়ে বিজয়ী চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপনের ছোট ভাই রেজাউল করিম আমাকে মারধর করেন।

অপরদিকে রেজাউল করিম জানান, ফয়সাল আমার খালাতো ভাই, আমাদের সাথে পারিবারিক দ্বন্দে কথার কাটাকাটির এক পর্যায় আমাদের ফাসানোর জন্যে কে বা কাহারা লোকজনের ভিরে ফয়সালের মাথায় আঘাত করে। আমি ফয়সালকে কোন আঘাত করিনি, আমাদের সাথে হাতা-হাতি হয়েছে।

পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী তরিকুল ইসলাম বুলবুল জানান, ফয়সাল আমার কর্মী হওয়ায় উদ্দেশ্যে মূলক ভাবেই তাকে মারধর করা হয়েছে। তার মাথায় মারাত্মক ভাবে জখম করা হয়েছে। সে খবুই অসুস্থ্য। চেয়ারম্যান রিপনের ভাই রেজাউল নিজেই ফয়সালকে মেরেছে।

শৌলজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপন জানান, ফয়সাল খান আমার আপন খালাতো ভাই। শুক্রবার সন্ধ্যায় ছোট ভাই রেজাউলের সাথে ফয়সালের হাতাহাতি ঘটনার খবর শুনে আমি ঘটনাস্থলে এসে ফয়সালকে লোক দিয়ে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠিয়েছি। নির্বাচনে পরাজিত একটি মহল এ ঘটনাকে মিথ্যা ও বানোয়াট বানিয়ে ফেইজবুকসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে অপ্রচার করে আমাকে সামাজিক ও রাজনৈতিকভাবে হেপ্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছেন। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাই।

কাঠালিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পুলক চন্দ্র রায় জানান, এ ববিষয়ে থানায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana