সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় ঝুঁকি নিয়ে সাঁকো পারাপার, ভোগান্তিতে হাজারো মানুষ

কাঠালিয়ায় ঝুঁকি নিয়ে সাঁকো পারাপার, ভোগান্তিতে হাজারো মানুষ

ঝালকাঠির কাঠালিয়া উপজেলার চেঁচরী রামপুর ইউনিয়নের বানাই ভারানী খালের ওপর সেতু না থাকায় ভোগান্তিতে ওই এলাকার হাজারো মানুষ। সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে ওই এলাকার নারী, বৃদ্ধ ও শিশুশিক্ষার্থীরা। প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোমলমতি শিক্ষার্থী, মাধ্যমিক ও কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থীসহ অসুস্থ মানুষদের ঝুঁকি নিয়ে খাল পার হতে হয়। এতে শিশুশিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকেরা সব সময় দুশ্চিন্তায় থাকেন।

জানা গেছে, খালের উত্তর পাড়ে রয়েছে ১২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বানাই রাবেয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বানাই স্কুল অ্যান্ড কলেজ ও বানাই বাজার। দক্ষিণ পাড়ে রয়েছে বানাই দক্ষিণ, ভায়লাবুনিয়া ও কালিশংকরসহ ৪-৫টি গ্রাম। এসব গ্রামের হাজারো মানুষ প্রতিদিন একমাত্র ভরসার ওই সাঁকো দিয়েই যাতায়াত করেন।

বানাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল রহিম বলেন, সেতু না থাকায় স্কুলে যাওয়া-আসার সময় প্রতিদিন সাঁকোর কাছে অনেকক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এক একজন করে পার হতে হয়। দুপাশে ভিড়ের কারণে অনেক সময় স্কুলে যেতে দেরি হয়। তাড়াতাড়ি পার হতে গিয়ে অনেকে পড়ে গিয়ে আহত হয়। বই-খাতা নষ্ট হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. মাহবুব খান জানান, সেতু না থাকায় সাঁকো দিয়ে বানাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও বাজারে যাতায়াতের জন্য এলাকাবাসীর অনেক ভোগান্তি হয়। অনেক সময় দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। ছোট ছেলে-মেয়েরা পার হতে পারে না। অনেক সময় সাঁকো পার হতে গেলে খালে পড়ার ভয় থাকে। আমাদের সকলের দাবি কর্তৃপক্ষ যেন খুব দ্রুত এখানে একটি সেতু নির্মাণের ব্যবস্থা করেন।

বানাই গ্রামের বাসিন্দা হাবিবুর রহমান ও বেলায়েত হোসেন বলেন, একটি সাঁকো দিয়ে প্রতিদিন গ্রামের হাজারো মানুষকে পার হতে হয়। অসুস্থ রোগী ও বৃদ্ধদের নিয়ে পড়তে হয় চরম দুর্ভোগে। এছাড়া এসব গ্রামের উৎপাদিত কৃষিপণ্য ও সুপারি বাজারে নেওয়ার সময় চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়। এলাকার মানুষের দুর্ভোগ দূর করতে একটি সেতু খুব দরকার।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. নাসির উদ্দিন জানান, স্বাধীনতার পর থেকে এলাকাবাসী এখানে একটি সেতুর দাবি করে আসছেন। সবাই প্রতিশ্রুতি দিলেও তার বাস্তবায়ন করে না।

১ নম্বর চেঁচরী রামপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. হারুন অর রশীদ বলেন, সাঁকোটি দিয়ে যাতায়াত করতে ওই এলাকার মানুষের অনেক সমস্যা হয়। পরিষদ থেকে সেতু নির্মাণ করা সম্ভব নয়। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বানাই খালের ওপর সেতুর চাহিদা পাঠানো হবে।

উপজেলা প্রকৌশলী (এলজিইডি) সাদ জগলুল ফারুক জানান, আমাদের আয়রন সেতু নির্মাণ প্রকল্প থেকে ওই খালের ওপর সেতু নির্মাণের জন্য প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana