মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন

কাঠালিয়ায় এক গৃহকর্তাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ও টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

কাঠালিয়ায় এক গৃহকর্তাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা ও টাকা-স্বর্ণালংকার লুট

বার্তা ডেস্ক:

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায়  আঃ জলিল টুকু পঞ্চায়েত(৫০) নামের এক কৃষককে (গৃহকর্তা) হত্যার চেষ্টায় কুপিয়ে গুরুর জখম করার অভিযোগ পাওয়াগেছে।

স্বামীকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তার স্ত্রী হনুফাকেও(৪০) পিটিয়ে আহত করা হয়।  এসময় তিন ভরি স্বর্নালংকার ও ৫০হাজার টাকা লুটে নেয় হামলাকারী ।

শুক্রবার(৩০জুলাই) দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার আওরাবুনিয়া ইউনিয়নের উত্তর চড়াইল গ্র্ামের পঞ্চায়েত বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত টুকু পঞ্চায়েতকে আশংকাজনক অবস্থায় প্রথমে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে বরিশাল শেরই বাংলা মেডিকেল কলেজ সহাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আহত গৃহকর্তা  আঃ জলিল টুকু পঞ্চায়েতের স্ত্রী হনুফা বেগম ডলি জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে আমাদের ঘরে বিভিন্ন স্থানে তিনটি সিঁদ কেটে উঠতে ব্যর্থ হয়ে পিছনের দরজা ভেঙ্গে ৫/৭ জন লোক ঘরে ঢুকেই আমার স্বামীকে দামদা ও চাপাতি দিয়ে এলোপাথরী কোপাতে কোপাতে মাটিতে ফেলে দেয়।

আমি তাকে (স্বাামীকে) বাঁচানোর জন্য চিৎকার করলে দূর্বত্তরা রামদা দিয়ে আমার হাতে জোরে আঘাত করে। অন্যরা ঘরের লোকজনকে আটকে রেখে মালামাল তছনছ করতে থাকে। এ সময় আলমারি থেকে ৩ভরি স্বর্ণ (চেইন, বালা ও দুল) ও নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে যায় তারা।

আওরাবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া সম্পাদক মো. মিঠু সিকদার জানান, আঃ জলিল টুকু আওয়ামী লীগের নিবেদিত একজন কর্মী।

কৃষিকাজ করে তিনি সংসার চালাতেন। তাকে যেভাবে কোপানো হয়েছে কোন মানুষ তা সহ্য করতে পারে না। যে কোনো মূল্যে হোক  এ ঘটনার সুঠু বিচারের জন্য যা প্রয়োজন করা হবে।

কাঠালিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) পুলক চন্দ্র রায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, পূর্ব শত্রুতা ও জমা-জমি সংক্রান্ত মামলা জেরে জলিল পঞ্চায়েত ওরফে টুকুকে কোপানোর উদ্দেশ্যেই মূলত দূর্বত্তরা ঘরে ঢুকেছিল।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana