শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০১:২৩ পূর্বাহ্ন

কাঠালিয়ায় অগ্নিকান্ডে তিনটি বসত ঘর পুড়ে ছাই

কাঠালিয়ায় অগ্নিকান্ডে তিনটি বসত ঘর পুড়ে ছাই

বিশেষ প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে তিনটি বসত ঘর পুড়ে ছাই গেছে। এর মধ্যে একটির অর্ধেক বাকি দুটি বসতঘর সম্পুর্ন পুড়ে যায়। গত শুক্রবার (২৩ ফের্রুয়ারী) গভীর রাতে উপজেলার শৌলজালিয়া ইউনিয়নের বলতলা গ্রামের ছয়ঘর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম পৌনে দুই ঘন্টা অভিযান চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কাঁঠালিয়া ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছাবার পুর্বেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। অগ্নিকান্ডে ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে ভুক্তভোগীদের দাবী। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপন এ তথ্য জানান। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.নেছার উদ্দিন ও থানার ওসি মো.নাসির উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অগ্নিকান্ডের সঠিক কারণ জানা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিস সুত্রে জানাগেছে, শুক্রবার দিবাগত রাতে বলতলা গ্রামের ছয়ঘর এলাকার মো.বাবুল হাওলাদারের তালাবদ্ধ ঘরের পিছনে আগুন জ¦লতে দেখে ডাকচিৎকার দেয় বাড়ীর লোকজন। মূর্হুতের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পরে পাশের মো.ফরিদ হাওলাদার ও শাহজাহান হাওলাদারের ঘরে। ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রো আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পুর্বেই মো.বাবুল হাওলাদার ও মো.ফরিদ হাওলাদারের বসত ঘর সম্পুর্ন পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এবং শাহজাহান হাওলাদারের বসত ঘরের অর্ধেক পুড়ে যায়। শাহজাহান হাওলাদারের মেয়ে শারমিন বেগম জানান, বাবার ঘরে আগুন লাগার খবর শুনে, পাশের শ^শুর বাড়ী থেকে এসে দেখি ঘরের অর্ধেক পুড়ে গেছে। মালামাল কিছু বের করা হয়েছে। বাকিটা পুড়ে গেছে। ঘরে অনেক মুল্যবান জিনিসপত্র ছিল। স্থানীয় ইউপি মেম্বার মো.কবির হোসেন জানান, খবর শুনে স্থানীয় মহল্লাদারকে সঙ্গে নিয়ে স্থানীয়দের সহায়তায় আগুন নিভানোর চেষ্টা করি। ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদ হোসেন রিপন জানান,খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানার ওসিকে জানাই।্ এবং স্থানীয় ইউপি মেম্বার, মহল্লাদার ও স্থানীয়দের নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে সহযোগীতা করি।

কাঠালিয়া ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন মাস্টার মো.শহীদুল ইসলাম জানান, অগ্নিকান্ডের সঠিক কারণ জানা যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন




All rights reserved@KathaliaBarta 2023
Design By Rana