এখন সময় :
,
kathaliabarta.com

দুই হাজার কোটি টাকা না দিলে গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

অনলাইন ডেস্ক:

আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তিন মাসের মধ্যে দুই হাজার কোটি টাকা জমা না দিলে মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে ব্যভস্থা নেবে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। সংস্থাটির চেয়ারম্যান জহুরুল হক বলেন, সুপ্রিম কোর্ট গ্রামীণফোনকে দুই হাজার কোটি টাকা জমা দিতে বলেছে। তারা এটা না দিলে আইন অনুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে। বৃহস্পতিবার রাজধানীর রমনায় বিটিআরসির কার্যালয়ে এক মতবিনিময় সভায় সংস্থাটির চেয়ারম্যান এ কথা বলেন।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বললেন, ২৪ নভেম্বর থেকে তিন মাস গণনা শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে দেড় মাসের মতো পেরিয়েছে। অনুষ্ঠানে বিটিআরসির কমিশনার (তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা) মো. আমিনুল হাসান, মহাপরিচালক (তরঙ্গ ব্যবস্থাপনা) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শহীদুল আলম, মহাপরিচালক (কারিগরি ও কার্যক্রম) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাহফুজুল করিম মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বিটিআরসির ২০১৮ সালের কার্যক্রম ও নতুন বছরের পরিকল্পনা জানাতে এই সভার আয়োজন করা হয়।

 

গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসি ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা পাওনা দাবি করছে। আর দ্বিতীয় বড় অপারেটর রবি আজিয়াটার কাছে দাবি করা হচ্ছে ৮৬৭ কোটি টাকা। এ পাওনার উৎস প্রতিষ্ঠান দুটিতে বিটিআরসির চালানো নিরীক্ষা।
গ্রামীণফোনের ওপর নিরীক্ষা করা হয় ১৯৯৭ থেকে ২০১১ পর্যন্ত। আর রবির ওপর নিরীক্ষা করা হয় ১৯৯৭ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত।

বিটিআরসি বলছে, রাজস্ব ভাগাভাগি, করসহ বিভিন্ন খাতে এ টাকা ফাঁকি দিয়েছে অপারেটর দুটি। গ্রামীণফোন ও রবি নিরীক্ষার দাবির বিষয়ে দ্বিমত পোষণ করে আসছে। তারা চায়, সালিসের মাধ্যমে পাওনার বিষয়টি নিষ্পত্তি করা হোক। যদিও বিটিআরসি বলে আসছে, তাদের আইনে সালিসের সুযোগ নেই। পাওনা আদায়ে ব্যান্ডউইথ কমিয়ে দেওয়া, প্যাকেজ ও সরঞ্জাম আমদানির অনুমোদন বন্ধ করার পরও সাড়া না পেয়ে বিটিআরসি অপারেটর দুটিকে লাইসেন্স বাতিলের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়। এ নিয়ে আদালতে যায় গ্রামীণফোন ও রবি। গ্রামীণফোনের আবেদনের পর হাইকোর্ট বিটিআরসির পদক্ষেপের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন। পরে ২৪ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ বলেছেন, গ্রামীণফোনকে তিন মাসের মধ্যে দুই হাজার কোটি পরিশোধ করতে হবে। নইলে হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা বাতিল হবে।




Share Button
Print Friendly, PDF & Email
নোটিশ :   কাঠালিয়া বার্তার প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি - সম্পাদক
সম্পাদক ও প্রকাশক: মোঃ শহীদুল আলম, নির্বাহী সম্পাদক: মোহাম্মদ আবদুল হালিম
বার্তা সম্পাদক: মোঃ সাকিবুজ্জামান সবুর
সম্পাদকীয় কার্যলয়: কাঠালিয়া বার্তা, কলেজ রোড, কাঠালিয়া, ঝালকাঠি।
ইমেল: kathaliabarta@gmail.com, মুঠোফোন: ০১৭১২৫২৯২৬৬, ০১৭৭৪৯৩৭৭৫৫