শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
মফস্বল সাংবাদিকতায় হীরা

মফস্বল সাংবাদিকতায় হীরা

মোঃ মোছাদ্দেক হাওলাদার:

গ্রাম-বাংলা ঘুরে, রোদ-বৃষ্টি উপেক্ষা করে কঠোর পরিশ্রম করে তিনি সংবাদ সংগ্রহ করে। গ্রামীণ সাংবাদিকতায় যার রয়েছে বিশেষ অবদান। সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে জনমত সৃষ্টি ও সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে প্রয়াসী সাংবাদিক দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার খোকন আহম্মেদ হীরা। একজন নির্ভীক সাংবাদিক হিসেবে দখিনের জনপদের সবার কাছে তিনি অতি প্রিয় পরিচিত মুখ। সাংবাদিকতার দীর্ঘ অভিজ্ঞতা, দায়িত্ব, সততা ও সংবাদের বস্তুনিষ্ঠতা তাকে অন্য সাংবাদিকের চেয়ে করেছে আলোকিত । সাংবাদিকতা জীবনে কখনও তিনি অন্যায়ের কাছে মাথা নত করেননি। স্বার্থ, প্রলোভন, অর্থবিত্ত তাকে কোনোদিন দমাতে পারেনি। রাজনৈতিক মতাদর্শে বিশ্বাসী হলেও পত্রিকার নীতিমালার অনুসরণে তিনি কঠোর নিরপেক্ষতা বজায় রাখে।
গোটা দক্ষিণাঞ্চলের সমস্যা-সম্ভাবনা ও গণমানুষের কথাগুলোকে অবিরাম তুলে ধরেছেন তিনি। পাশাপাশি স্থানীয়, সামাজিক, সাংস্কৃতিক অঙ্গনে রয়েছে তার পদচারণা। ছাত্রজীবনে থেকেই তার সাংবাদিকতা শুরু। সুদীর্ঘ সাংবাদিকতা জীবনে অসংখ্য প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কজ করছেন তিনি। নেতৃত্ব দিয়েছেন বেশ কয়েকটি সাংবাদিক সংগঠনের। বর্তমানে তিনি বহুল প্রচলিত জাতীয় দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার পদে নিযুক্ত আছেন। সম্প্রতি নিজ কর্মের জন্য জনকণ্ঠ পরিবারের দেশ সেরা প্রতিবেদক নির্বাচিত হয়েছেন।

খোকন আহম্মেদ হীরা সাংবাদিকতা জীবনে দক্ষিঞ্চলের নিপীড়িত, লাঞ্ছিত মানুষের ন্যায্য অধিকার নিয়ে সচিত্র প্রতিবেদন লিখে সহস্র মানুষের চিকিৎসার, ভাত কাপড়ের, পুঁজি, বাসস্থানের ব্যবস্থাসহ আর্থিক সাহায্য প্রদানে সহযোগিতা করাসহ মানুষের করুণ কাহিনী লিখে বিভিন্ন সময়ে তাদের চিকিৎসা বাবদ ও স্বচ্ছলভাবে চলার পুঁজির ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তিনি অনেক দুঃসাহসিক রিপোর্ট প্রকাশ করেছেন। তার লেখা একাধিক প্রতিবেদনই জনকণ্ঠের লিড নিউজ ছাপা হয়। অসংখ্য অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশের ফলে একাধিক সরকারি কর্মকর্তা কর্মচারী বদলি ও শাস্তি হয়েছে। তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে অসংখ্য অনিয়ম দুর্নীতির। সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশের পর নির্মিত হয়েছে বিভিন্ন ব্রিজ, কালভার্ট, রাস্তাঘাট ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ভবন ইত্যাদি।
তিনি সবসময় বলেন, ‘সাংবাদিকদের লেখনি সমাজের আয়নায় পরিণত হোক। যা দেখে মানুষ সচেতন হবে। আমরা চাই, এলাকার অন্যায়, অত্যাচার, বঞ্চনা, শোষণের বিপক্ষে সাংবাদিকের কলম ও ক্যামেরা যথাযথ কাজ করুক। ভালো কাজের প্রশংসার বাস্তব চিত্র ফুটে উঠুক। আমাদের লেখা পড়ে মানুষ ভালো কিছু শিখবেন। সমাজের উন্নয়ন হবে এমটাই প্রত্যাশা করি।’
খোকন আহম্মেদ হীরা দখিনের সাংবাদিকদের একজন আদর্শ। সততা ও ন্যায়ের সঙ্গে তিনি সাংবাদিকতা করেছেন। তার সংবাদে অসংখ্য মানুষ উপকৃত হয়েছেন। তিনি নতুন প্রজন্মের সাংবাদিকদের নানাভাবে সহযোগিতা করেছেন। তিনি প্রকৃতই একজন দেশপ্রেমিক সাংবাদিক।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana