বুধবার, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৫৯ পূর্বাহ্ন

কাঠালিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৪লক্ষ টাকা জরিমানা; ২লক্ষ টাকার রশিদ প্রদানের অভিযোগ

কাঠালিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৪লক্ষ টাকা জরিমানা; ২লক্ষ টাকার রশিদ প্রদানের অভিযোগ

বার্তা ডেস্ক:

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডে নানা অনিয়মের অভিযোগে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুমিত সাহা অভিযান চালিয়ে জরিমানা করে নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেইজবুকে) প্রচার করেন।

অপরদিকে ইট ভাটা কর্তৃপক্ষ বলছেন ২৫ জানুয়ারী অভিযানের নামে ফায়ার সার্ভিসের পানি দিয়ে ইট ভাটার চুলা ধ্বংস করার ভয় দেখিয়ে ও দুজনকে আটক করে, চার লক্ষ টাকা নিয়ে দুই লক্ষ টাকার একটি রশিদ দেন।  সহকারী কমিশনার (ভূমি) সুমিত সাহার স্বাক্ষরিত রশিদের মামলা নম্বর ০৫/২০২১, ক্রমিক নং ৪৮০৮২৩।

মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডের ব্যবসায়িক পার্টনার মোঃ শাহিন আকন জানান, “২৫ জানুয়ারী সোমবার সকালে ভাটায় অভিযানে আসেন এসিল্যান্ড, ধমকল বাহিনীর পানির মেশিন দিয়ে চুলা ধ্বংস করার চেষ্টা করেন এবং ভয়ভীতি দেখান।  এ সময় মালিকের শশুর হাবিবুর রহমান ও ভাটার স্ট্যাফ মোঃ মফিজুল আলমকে আটক করা হয়। প্রথমে আমাদের কাছে ১০ লক্ষ টাকা দাবি করে, পরবর্তীতে ৪ লক্ষ টাকায় বিষয়টি মিমাংসা হয়। পরে বিভিন্ন লোকজনের কাছ থেকে ধার-দেনা করে উপজেলা ভূমি অফিসে টাকা পৌছি দিয়ে আসি। টাকা দেয়ার পরে আটককৃতদের ছেড়ে দেয়া হয় এবং দুই লক্ষ টাকার একটি রশিদ দেয়া হয়।

ভাটার মালিক মোঃ এনামুল হক জানান, বিষয়টি উপরমহলে জানাজানি হওয়ার পর টাকা ফেরৎ দেয়ার জন্যে সহকারী কমিশনার ভূমি সুমিত সাহার নির্দেশে নাজির মাইনুল আমার পার্টনার শাহিনকে অফিসে ও বাড়িতে খুজে বেড়াচ্ছেন এবং টাকা ফেরৎ নেয়ার জন্যে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন।

সহকারী কমিশনার ভূমি সুমিত সাহা ৪ লক্ষ টাকা নেয়ার কথাটি অস্বীকার করেন, তিনি জানান “অন্য কেউ টাকা নিয়েছে কিনা আমার জানা নেই, আমি ২ দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করেছি। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন জেলা প্রশাসক স্যার আমার কাছে বিষয়টি জানতে চেয়েছেন”।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুফল চন্দ্র গোলদার জানান, মেসার্স ত্বহা ব্রিকস ফিল্ডে একটি অভিযান পরিচালিত হয়েছে, সেখানে দুই লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে, এর বাহিরে অন্য কিছু আমার জানা নেই।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana