শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৩:২৮ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে স্থাপনা নির্মাণ ও প্রতিপক্ষকে হুমকীর অভিযোগ

কাঠালিয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে স্থাপনা নির্মাণ ও প্রতিপক্ষকে হুমকীর অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি:

ঝালকাঠির কাঠালিয়ার কচুয়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জোরপূর্বক বিরোধীয় জমিতে বসতঘর ও রান্নাঘরসহ খোলা টয়লেট নির্মাণ এবং প্রতিপক্ষকে হুমকী দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় উপজেলার শৌলজালিয়া ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলী হাওলাদার ছেলে জালাল উদ্দিন হাওলাদার উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রতিপক্ষ আঃ রহমান হাওলাদার, তার ছেলে হালিম, সেলিম হাওলাদার ও শাহারুল হাওলাদারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

জালাল উদ্দিন হাওলাদার জানান, ২০০৯ সালে আমার পৈত্রিক জমিতে বসত ঘর নির্মাণের শুরু করলে আমার চাচাত ভাই আঃ রহমান হাওলাদার এতে বাঁধা প্রদান করে এবং আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়ে ( ১৪৪ ধারা জারির মাধ্যমে) কাজ বন্ধ করে দেন। ওই আদেশের বিরুদ্ধে আমি আইনী লড়াইসহ একাধিক মামলা ও উকিল কমিশনে আমার পক্ষে রায় হয়। আদালতের এসব রায় বা আদেশ উপেক্ষ করে আঃ রহমান হাওলাদার ও তার ছেলেরা আমার দখলীয় জমিতে পাকা ভবন নির্মাণের চেষ্টা করলে আমি মামলা করি, বিজ্ঞ আদালত (২০১৭ সালে) উক্ত সম্পত্তিতে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ আঃ রহমান হাওলাদার ও তার ছেলেরা আদালতের নিষেধাজ্ঞা তোয়াক্কা না করে আমার ঘরে যাতায়তের পথ বন্ধ করে আমার নিজস্ব জমিতে সন্ত্রাসী বাহিনা এনে জোর পূর্বক পাকা ভবণ, রান্নাঘর ও একটি খোলা টয়লেট নির্মান করে। বিশেষ করে আমার বসত ও খাবার ঘরের সংলগ্ন খোলা টয়লেট বানানোর কারণে অসহ্যনীয় দূগর্ন্ধে আমাদের ঘরে বসবাস করা দূরূহ হয়ে পড়েছে। পরিবেশ দূষণের ফলে বাড়ির অন্যন্য পরিবারও চরম ক্ষতির শিকার হচ্ছেন। এতে বাধা দিলে আমার বৃদ্ধ মাসহ আমাদেরকে প্রাণ নাশসহ বিভিন্ন প্রকার হুমকী দমকী দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে প্রতিপক্ষ সেলিম হাওলাদার জমিতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে স্বীকার করে বলেন, আমার বাবা অসুস্থ তাই বার বার বাহিরে যেতে পরেন না, সেকারণে বাথরুম ও পাইপ দিয়েছি। আর ভবণ করেছি আমাদের নিজস্ব জমিতে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন







All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana