সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় হাত-পা, মুখ ও চোখ বাঁধা অবস্থায় এক যুবক উদ্ধার

কাঠালিয়ায় হাত-পা, মুখ ও চোখ বাঁধা অবস্থায় এক যুবক উদ্ধার

বার্তা ডেস্ক:

ঝালকাঠির কাঠালিয়ায় হাত-পা, মুখ ও চোখ বাঁধা অবস্থায় মো. তরিকুল ইসলাম তুরান ( ২২ ) নামের এক যুবককে উদ্ধার করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার পাটিখালঘাটা ইউনিয়নের জোড়খালী গ্রামের একটি মাঠ থেকে স্থানীয়রা ওই যুবককে উদ্ধার করেন। পরে তাকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আমুয়ায় ভর্তি করা হয়। উদ্ধারকৃত যুবক মো. তরিকুল ইসলাম তুরান ওই গ্রামের সোনা মিয়া খানের ছেলে । প্রেম সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে পরিবার ও স্থানীয়দের দাবি।

আজ শুক্রবার দুপুরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তরিকুল ইসলাম তুরান বলেন, বুধবার রাত ১১টার দিকে আমি একা বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলাম। এসময় অপরিচিত ৪জন লোক আমাকে আমার নাম জিজ্ঞেস করেন। আমি নাম বললে দুজনে আমাকে পিছন থেকে ধরে ফেলে আমার হাত-পা, মুখ ও চোখ বেঁধে মারধর করে নদীর পারে নিয়ে যায়। তারা চাইছিলো আমাকে নদীতে ফেলে দিবে। এসময় আমার বাড়ির লোকজন আমাকে খোঁজাখুজি করতে ছিলো এবং ট্রলারে নদী দিয়ে যাচ্ছিল তার জন্য নদীতে ফেলতে পারেনি। পরে আমাকে ধরে একটি সাঁকো পাড় করিয়েছিলো তার পর আর কিছু মনে পড়ছে না। তিনি আরো বলেন, এ ঘটনার পিছনে একটি কারণ থাকতে পারে। অনেক দিন থেকে আমি একটি মেয়ে সাথে কথা বলতাম। কিন্তু ওই মেয়েটির বিয়ে হয়ে গেছে। তারপরেও মেয়েটির আমার সাথে সবসময় কথা বলতো। তাকে এখনো স্বামীর বাড়িতে তুলে নেয়নি। আমি ওই রাতেও তার সাথে কথা বলতে বলতে বাড়ি যাচ্ছিলাম। তখন ওই মেয়েটিই আমার বাড়ি, বন্ধু ও বোনজামাইকে জানিয়েছে। তা না হলে আমাকে আর পাওয়া যেত না। এ ঘটনায় আমার পরিবার থেকে মামলার প্রস্তুতি নিয়েছে।

কাঠালিয়া থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এইচ এম শাহিন বলেন, উদ্ধারকৃত তরিকুল ইসলাম তুরানকে চিকিৎসার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আমুয়া ভর্তি করা হয়েছে। আমি একাধিকবার সেখানে গিয়েছি এবং তার সাথে কথা বলেছি। তারা লিখিত অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana