সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ০৩:৫৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
কাঠালিয়ায় উপজেলা প্রশাসনের ৭ই মার্চ পালিত রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধার বসতঘর পোড়ানোর অভিযোগে মামলা কাঠালিয়ায় বিদ্যুৎ সেবা সাময়িক বন্ধের জরুরী বিজ্ঞপ্তি রাজাপুরে নির্মাণকালে মডেল মসজিদে ফাটল আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আবারও নৌকার কান্ডারী হিসাবে সেলিম মোল্লাকে চেয়ারম্যান দেখতে চায় গরুর ক্ষুরা রোগের প্রাদুর্ভাব দিশেহারা কৃষক নলছিটিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১ ঝালকাঠিতে ইউপি চেয়ারম্যানকে নৌকা প্রতীক না দেয়ার জন্য স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সংবাদ সম্মেলন সরকারি অফিসে তালা! অধিনস্থদের নিয়ে কর্মকর্তা কুয়াকাটায় ভ্রমনে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে নলছিটির মোল­ারহাটে নৌকার কান্ডারি হতে চান মাহাবুব সেন্টু
ঝালকাঠিতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামী-ভিকটিম’র বিয়ে

ঝালকাঠিতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামী-ভিকটিম’র বিয়ে

ঝালকাঠি প্রতিনিধি:

ঝালকাঠিতে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার আসামীর সাথে ভিকটিম তরুণীর বিয়ের শর্তে ধর্ষকের জামিন মঞ্জুর করেছেন জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. শহিদুল্লাহ। রোববার জামিন শুনানীর নির্ধারিত দিনে আদালতে বাদী এবং আসামী উপস্থিত হলে জেলা ও দায়রা জজ মো. শহিদুল্লাহ বরপক্ষের অনুরোধে উভয় পক্ষকে বিয়ের শর্তে স্থায়ী জামিনের প্রস্তাব দেন।

প্রস্তাবে উভয় পক্ষ রাজি হলে জেলা ও দায়রা জজ মো. শহিদুল্লাহ’র নির্দেশে রোববার দুপুরে দুইপক্ষের উপস্থিতে বিয়ে পড়ান কাজী মাওলানা মোঃ সৈয়দ বশির। জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউট (পিপি) এবং বাদী পক্ষের মামলা পরিচালনাকারী অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান রসুল ও আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন কবীর এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এ বিয়ের বর হলেন সদর উপজেলার বৈদারাপুর গ্রামের মহিদুল ইসলাম আর কনে হলেন চরভাটারাকান্দা গ্রামের আয়শা আক্তার। বিয়ের পর আসামী বর মহিদুলের জামিন মঞ্জুর করেন বিচারক মো. শহিদুল্লাহ ।

পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল মান্নান রসুল জানান, ৩বছর পূর্বে ঝালকাঠি সদর উপজেলার চরভাটারাকান্দা গ্রামের গ্রামের আয়শা আক্তারকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে ভিকটিমের মা লাকি বেগম বাদী হয়ে একটি নালিশী মামলা দায়ের করে। মামলা দায়েরের পর থেকে আসামী পলাতক ছিলো।

রোববার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে আসামীর জামিন শুনানীর সময় আসামী পক্ষ ভিকটিমকে বিবাহের আগ্রহ প্রকাশ করলে এবং নির্যাতিত পক্ষও প্রস্তাবে রাজি হলে বিচারক মো. শহিদুল্লাহ আদালতের মধ্যেই ৫ লাখ টাকা দেনমোহরে বিবাহের নির্দেশ দেন। আদালত চত্বরে আসামী, ভিকটিম ও উভয়পক্ষের আইনজীবীদের উপস্থিতিতে বিবাহ সম্পন্ন হয় । বিবাহের আনুষ্ঠানিকতা শেষে আদালতে কাগজপত্র জমা দিলে শুনানী শেষে আসামীর জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।

 

Print Friendly, PDF & Email

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন













All rights reserved@KathaliaBarta-2021
Design By Rana